Fact Check: থাইল্যান্ডের পুরনো ছবি ভাইরাল হয়েছে বিভ্রান্তিকর দাবি নিয়ে

0 170

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ঘুরছে যাতে কিছু ছাত্রছাত্রীকে দেখা যাচ্ছে প্লাস্টিক কিউবিকল্‌সের মধ্যে বসে থাকতে। দাবি করা হচ্ছে মহামারীকালে এইভাবেই থাইল্যান্ডে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।

এই পোস্টটি ফেসবুকে শেয়ার করার সময় ক্যাপশনে লেখা হচ্ছে:‌ ‘‌৩য় বিশ্বের দেশ থাইল্যান্ড। এভাবেই পরীক্ষা ও ক্লাস হচ্ছে বিদ্যালয়ে। ওরা পারলে আমরা পারবো না?‌’‌

(Original Text: ৩য় বিশ্বের দেশ থাইল্যান্ড। এভাবেই পরীক্ষা ও ক্লাস হচ্ছে বিদ্যালয়ে। ওরা পারলে আমরা পারবো না)

‌এখানে পোস্টটির (‌ post )‌ লিঙ্ক দেওয়া হল।

একই রকমের অন্য পোস্ট দেখুন (‌ herehere, and here )‌

FACT CHECK

নিউজমোবাইল এই পোস্টটির ফ্যাক্ট–চেক করে দেখেছে যে এই দাবি বিভ্রান্তিকর। ‌
ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করে আমরা দেখতে পাই ২০২০ সালের ১২ আগস্ট একটি নিবন্ধের সঙ্গে এই ছবিটি ছাপা হয়েছিল ইন্ডিয়াটাইমস.কম (‌ indiatimes.com ) ‌ওয়েবসাইটে।
নিবন্ধটির বিষয় ছিল মহামারীর সময় কীভাবে থাইল্যান্ডে সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য কোভিড নিয়মবিধি মেনে স্কুল খোলা হয়েছে।

গেটি ইমেজেস (‌ “Getty Images” )‌ ও হাফিংটন পোস্ট (‌  )‌ এরকম আরও কিছু ছবি প্রকাশ করেছিল যেগুলোতে দেখা যাচ্ছে থাইল্যান্ডের ছাত্রছাত্রীরা ক্লাসে বসে আছে প্লাস্টিক কিউবের মধ্যে। সব ছবিগুলোই ২০২০ সালের।

ছবিগুলো সম্পর্কে যা লেখা আছে তা থেকে স্পষ্ট এগুলো তোলা হয়েছে ব্যাঙ্ককের একটি স্কুলে ২০২০ সালের অগাস্ট মাসে, যখন লকডাউন শিথিল করে পর আবার স্কুল খুলেছিল।

তবে থাইল্যান্ডের সাম্প্রতিক মিডিয়া রিপোর্ট (‌ recent media reports )‌ অনুযায়ী, সেন্টার ফর কোভিড–‌19‌ সিচুয়েশন অ্যডমিনিস্ট্রেশন মহামারীর প্রকোপ বাড়ায় ব্যাঙ্কক ও তার আশপাশের অঞ্চলে স্কুল বন্ধ রাখার মেয়াদ বাড়িয়ে দিয়েছে। দেশব্যাপী জরুরি অবস্থার মেয়াদ ১ জুন থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩১ জুলাই পর্যন্ত।

ওপরের তথ্য থেকে এটা স্পষ্ট যে ভাইরাল হওয়া ছবিটি তোলা হয়েছেল গত বছরের (‌২০২০)‌ অগাস্ট মাসে যখন লকডাউনের কড়াকড়ি কমিয়ে স্কুল খোলা হয়েছিল। এখন স্কুল বন্ধ রাখার মেয়াদ জুলাই মাস পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়ায় ক্লাস চলছে অনলাইনে।

কাজেই ভাইরাল হওয়া পোস্টটি বিভ্রান্তিকর।