Fact Check: ডাল লেকের কাছে বেআইনি নির্মাণ ভেঙে ফেলার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে বিভ্রান্তিকর দাবি নিয়ে

0 412

সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে কিছু বেআইনি নির্মাণ ভাঙছেন একদল লোক যাঁদের দেখে মনে হচ্ছে সরকারি অফিসার। দাবি করা হচ্ছে ভিডিওতে জম্মু ও কাশ্মীরে রোহিঙ্গাদের বেআইনি নির্মাণ ভেভে ফেলছেন ওই অফিসারেরা।

ফেসবুকে পোস্টটি শেয়ার করা হয়েছে হিন্দিতে লেখা একটি ক্যাপশন দিয়ে যা অনুবাদ করলে মোটামুটি এরকম দাঁড়ায়:‌ “জম্মু ও কাশ্মীরে রোহিঙ্গা জেহাদিদের তৈরি করা বাড়িঘর ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। আমরা আমাদের বাড়িতে এত বড় কাঠের জানলা লাগাতে পারি না। ওরা ৩৭০ ধারা উঠে যাওয়ার আগে পর্যন্ত সরকারের দেওয়া বিশেষ প্যাকেজের সুযোগ নিয়ে এত টাকাপয়সা করেছে।”

(Original Text: जम्मू-कश्मीर में रोहिंग्या जेहादियों की रोशनी के तहत बसायी गई बस्ती उखाड़ी जा रही है.!! हम घरो मे लकड़ी की इतनी बड़ी खिड़की नहीं लगा पाते है और ये समृद्ध प्रकृति का भरपूर दोहन कर अार्टिकल 370 हटने के पहले तक जम्मू कश्मीर को केंद्र से मिलने वाले स्पेशल पैकेज पर खूब मौज मारी है !)

এইখানে ওপরের পোস্টের (‌  post )‌ লিঙ্ক দেওয়া হল। এমন আরও পোস্ট দেখুন (‌ here, and here  )‌।

পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে (‌ Facebook )‌।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল এই পোস্টটির ফ্যাক্ট–চেক করে দেখেছে যে এই দাবি বিভ্রান্তিকর। ‌

‌পোস্টের ভিডিওতে একটা ওয়াটারমার্ক রয়েছে যাতে লেখা আছে ‘‌জম্মু লিঙ্কস নিউজ’‌।
এর সূত্র ধরে ইউটিউব সার্চ করে আমরা ৫ জুন এই একই নামের একটি চ্যানেলের আপলোড করা আসল ভিডিও (‌ original video )‌ দেখতে পাই।

‌ভিডিওতে কিন্তু বলা হয়েছে লেক্‌স অ্যান্ড ওয়াটারওয়েজ ডেভলপমেন্ট অথরিটি (‌এলএডব্লুডিএ)‌ লসকরি মোহল্লা, দোজি মোহল্লা, বুরঝামা, ওয়াংগুট তেইবাল ও নিশাত এলাকায় বেআইনি নির্মাণ ভাঙছে।

এরপর প্রাসঙ্গিক কিওয়র্ড ধরে ধরে আরও অনুসন্ধান চালিয়ে আমরা ইটিভি ভারতের (‌  )‌ একটি সংবাদ প্রতিবেদন পাই এই একই বিষয়ের ওপর। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী জম্মু ও কাশ্মীরের লেক্‌স অ্যান্ড ওয়াটারওয়েজ ডেভলপমেন্ট অথরিটি (‌এলএডব্লুডিএ)লসকরি মোহল্লা, দোবি মোহকা, বুরঝামা, ওয়াংগাট তেল বিল, নিশাত ও সংলগ্ন এলাকায় বেআইনি নির্মাণ ভাঙছিল। প্রতিবেদনে কোথাও বলা হয়নি এই বেআইনি নির্মাণের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের কোনও যোগাযোগ আছ।

তাছাড়া অনেক স্থানীয় সংবাদ প্রতিষ্ঠান এই ঘটনাটি রিপোর্ট করেছিল এবং একই ধরণের ছবি ছেপেছিল। এগুলিতে বলা হয়েছিল, ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ডাল লেকের কাছাকাছি জায়গায় অনুমতি না–নিয়ে বেআইনিভাবে তৈরি বাড়িঘর ভেঙে দিচ্ছে এলএডব্লুডিএ। এই রিপোর্টগুলি এখানে পাবেন (‌ here, here & here )‌। এই বিষয়ে আরও কিছু ভিডিও দেখুন এখানে ( here and here )‌।

‌ডাল লেকের কাছাকাছি জায়গায় এলএডব্লুডিএ–র বেআইনি নির্মাণ ভেঙে দেওয়ার ঘটনা রিপোর্ট করেছিল  TV9, India Today  Zee news। সর্বত্রই বলা হয় এগুলি ডাল লেকের কাছাকাছি জায়গায় অনুমতি না–নিয়ে বেআইনিভাবে তৈরি বাড়িঘর। কিন্তু কোথাও এর সঙ্গে রোহিঙ্গাদের যুক্ত করা হয়নি। এর থেকে বোঝা যায় এর সঙ্গে রোহিঙ্গাদের কোনও সম্পর্ক নেই।

কাজেই বলা যা্য় ডাল লেকের কাছাকাছি জায়গায় বেআইনিভাবে তৈরি বাড়িঘর ভেঙে দেওয়ার ঘটনাটির সঙ্গে রোহিঙ্গাদের কোনও যোগাযোগ নেই।