Fact Check: না, এই ভিডিওতে ‘‌জন আশীর্বাদ যাত্রা’‌র সময় বিজেপি কর্মীদের জনতার হাতে আক্রান্ত হওয়ার ছবি দেখা যাচ্ছে না

0 271

সামাজিক মাধ্যমে একদল লোকের মারামারির একটি ভিডিও ঘুরছে, যাতে দাবি করা হচ্ছে যে এতে রাজস্থানে ‘‌জন আশীর্বাদ যাত্রা’‌র সময় বিজেপি কর্মীদের জনতার হাতে মার খেতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওটি শেয়ার করা হচ্ছে একটি গুজরাতি ক্যাপশন দিয়ে যা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়,  “এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে রাজস্থানে ‘‌জন আশীর্বাদ যাত্রা’‌র সময় বিজেপি কর্মীদের মানুষ আশীর্বাদ করছেন।”

(Original caption:આ વિડીઓ માં એવુ બતાવવામાં આવી રહ્યુ છે કે “જન આશિર્વાદ યાત્રા” દરમ્યાન રાજસ્થાન માં લોકોએ ભાજપ ને આશિર્વાદ આપવાનું શરૂ કરી દીધુ..)

এখানে ওপরের পোস্টের (‌ post )‌ লিঙ্ক দেওয়া হল। এমন আরও পোস্ট দেখুন (‌ here and here )‌।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল পোস্টটির সত্যতা যাচাই করে দেখেছে এটি পুরনো ও বিভ্রান্তিকর।

আমরা ভিডিওতে বিজেপি–র পতাকা দেখে ‘BJP leader thrashed’ বলে কি–ওয়র্ড ব্যবহার করে অনুসন্ধান চালিয়ে তেমন কিছু দেখতে পাইনি। তারপর আমরা ইনভিড টুল ব্যবহার করে কি–ফ্রেমগুলো বার করে নিই। তারপর কি–ওয়র্ডসহ সেগুলির গুগ্‌ল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি।

এইভাবে আমরা পৌঁছই ২০১৯ সালের ১২ এপ্রিলে ইন্ডিয়া টুডে (‌ India Today )‌ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে। সেখানে এই ভিডিওটি সহ এএনআইয়ের ১২ এপ্রিল, ২০১৯–এর একটি টুইট ছিল।

প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, ‘‌আজমের জনসভার সময় দু’‌দল বিজেপি কর্মীর সংঘর্ষ’‌। নিবন্ধ অনুযায়ী লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের সময় রাজস্থানের আজমের জেলার মাসুদায় ২০১৯–এর ১১ এপ্রিল বিজেপি–র দু’‌দল কর্মীর সংঘর্ষ বেধেছিল।

এখানে এএনআই টুইটটি দেখুন (‌ ANI tweet )‌, যার ক্যাপশন ছিল ‘‌রাজস্থান দেখুন:‌ আজমের জেলার মাসুদায় ২০১৯–এর ১১ এপ্রিল বিজেপি–র দু’‌দল কর্মীর সংঘর্ষ (‌১১।১৪।১৯)’‌‌।

আমরা একই প্রতিবেদন জি নিউজ, বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড ও পাঞ্জাব কেশরী–তে (  Zee NewsBusiness Standard and Punjab Kesari)  দেখতে পাই।

ওপরের তথ্যের ভিত্তিতে আমরা বুঝতে পারি ভিডিওটি পুরনো এবং আদৌ রাজস্থানের সাম্প্রতিক ‘‌জন আশীর্বাদ যাত্রা’‌র নয়।