Fact Check: আন্না হাজারের নামে চালানো ভুয়ো টুইট ভাইরাল হয়েছে

0 204

সমাজকর্মী আন্না হাজারের নামে চলা একটি টুইটের স্ক্রিনশট সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এতে দাবি করা হয়েছে সঞ্জয় রাউতের ভয়ে আন্না হাজারে মহারা্ষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে দেখা করতে পারেননি।

টুইটে লেখা হয়েছে:‌“जब मैं सीएम उद्धव ठाकरे के दफ्तर में धरने के लिए परमिशन लेने गया तो मुझे बाहर प्रतीक्षा करने को कहा गया..इस बीच ”संजय राउत” 4 पुलिस वालों साथ हाथ में डंडे लेकर 3 बार मेरे सामने से गुजरे तो हम वापस लौट गए। इस तरह हमको डंडों से डराना लोकतंत्र की हत्‍या है।”

(অনুবাদ:‌ আমি যখন ধর্নার জন্য অনুমতি চাইতে সিএম উদ্ধব ঠাকরের অফিসে যাই, তখন আমাকে বায়রে অপেক্ষা করতে বলা হয়েছিল। ইতিমধ্যে ‘‌সঞ্জয় রাউত’‌ তিনবার আমাদের সামনে দিয়ে লাঠিধারী চারজন পুলিশকে নিয়ে যাতায়াত করেন। তাই আমরা ফিরে যাই। এইভাবে লাঠি দিয়ে ভয় দেখানো গণতন্ত্রের হত্যা।)

এখানে ওপরের পোস্টের (post)‌ লিঙ্ক দেওয়া হল। এমন আরও পোস্ট দেখুন (‌here and here) ‌।
পোস্টটি ফেসবুকেও (‌Facebook)‌ আছে।
FACT CHECK
নিউজমোবাইল এর সত্যতা যাচাই করে দেখেছে যে এই দাবি অসত্য।

আমরা কিওয়র্ড সার্চ করে দেখতে পাই (‌ found)‌ আন্না হাজারে উদ্ধব ঠাকরের সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করার হুমকি দিয়েছেন এবং বলেছেন রাজ্য যদি লোকায়ুক্ত আইন প্রণয়ন না–করে তা হলে আন্দোলন (‌agitation)‌ শুরু হবে। কিন্তু ভাইরাল টুইটে যা বলা হয়েছে তেমন কিছু আমরা পাইনি


টুইটারে ইউজার নেম সার্চ করে আমরা দেখতে পাই এই অ্যাকাউন্টটি (‌ account )‌ খোলা হয়েছে ২০২১–এর অগাস্টে। অ্যাকাউন্টটি ভেরিফায়েড নয়। নানা টুইটে যে ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে তা থেকে সহজেই বোঝা যায় এটি ভুয়ো হ্যান্ডল।

আমরা দেখতে পাই এই টুইটটি (‌ tweet )‌ ওই হ্যান্ডলে দেওয়া হয়েছে ২০২১ সালের ৩ সেপ্টেম্বর।

https://twitter.com/Anna_Hazare_IND/status/1433646277191864325?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1433646277191864325%7Ctwgr%5E%7Ctwcon%5Es1_c10&ref_url=https%3A%2F%2Fnewsmobile.in%2Farticles%2F2021%2F09%2F11%2Ffact-check-fake-tweet-attributed-to-anna-hazare-goes-viral%2F
আমরা আন্না হাজারের নিজের টুইটার হ্যান্ডল খুঁজতে গিয়ে দেখি তেমন কোনও ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট নেই। বিষভ নিউজ–ও আন্না হাজারের টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানতে পারে টুইটটি ভুয়ো।

কাজেই উপসংহারে বলা যায়, আন্না হাজারের নামে চলা টুইট ভুয়ো। অতএব ভাইরাল দাবিটিও অসত্য।