Fact Check: বাঁধের জল ছাড়ার ভাইরাল ভিডিও ভারতের নয়, জাপানের

0 914

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে যেখানে দাবি করা হয়েছে যে ভারতের একটি বাঁধ থেকে নির্গত জল বাংলাদেশে বন্যার কারণ হচ্ছে।

ফোর্বসের (‌ Forbes )‌ একটি নিবন্ধ অনুসারে, “২০২২ সালের মে মাসে শুরু হওয়া আকস্মিক বন্যার একটি সিরিজ – জুনের মাঝামাঝি থেকে যার দ্বিতীয় তরঙ্গ আসে – তাতে উত্তর-পূর্ব বাংলাদেশে আনুমানিক ৭.২ মিলিয়ন মানুষ আটকা পড়েছেন।”

উপরের প্রসঙ্গে, ফেসবুক ব্যবহারকারীরা একটি ক্যাপশন সহ ভিডিওটি শেয়ার করেছেন: “বাংলাদেশের জন্য ভারতের তৈরি নতুন ফাঁদ!পানির বাঁধের নতুন আধুনিক সুইচ গেইট।”

এখানে উপরের পোস্টের ( post )  লিঙ্ক দেওয়া আছে।

FACT CHECK

‌নিউজমোবাইল পোস্টটির সত্যতা যাচাই করে দেখেছে যে এটি ভারতের নয়।

আমরা ভিডিওটির মূল ফ্রেমগুলি নিয়েছি এবং সেগুলিকে একটি রিভার্স ইমেজ সার্চে ফেলেছি। অনুসন্ধানটি আমাদেরকে ২ ডিসেম্বর, ২০১৩-এ ইউটিউবে (‌ YouTube )‌ আপলোড করা একই ভিডিওতে নিয়ে যায়৷ শিরোনামের অনুবাদটি পড়ে: “ইয়াহাগি বাঁধের জল ছাড়া  শুরু ২০১৩১২০২”৷

একটি কিওয়ার্ড অনুসন্ধান চালানোর সময় আমরা ইউটিউব-এ ইয়াহাগি বাঁধের একাধিক ভিডিও পেয়েছি, যা ২০১২, ২০১৩ ও ২০১৪ (‌ 20122013 and 2014 )‌ সালে আপলোড করা হয়েছিল।

আমরা ১৯৭০ সালে উদ্বোধিত জাপানের ইয়াহাগি বাঁধটিও (‌ Yahagi Dam )‌ দেখতে পাই।

আমরা গুগল মানচিত্রে ইয়াহাগি বাঁধের রাস্তার দৃশ্য (‌ Street View )‌ খুঁজে পেয়েছি, যেখানে একই কাঠামো দেখা যাচ্ছে।

কাজেই আমরা এই উপসংহারে আসতে পারি যে প্রচারিত ভিডিওটি জাপানের একটি পুরনো ভিডিও, ভারতের নয়।