Fact Check: ‌বাংলাদেশের ভিডিও অসত্যভাবে পশ্চিমবঙ্গের পুজো মন্ডপ ভাঙচুরের ছবি বলে শেয়ার করা হচ্ছে

0 177

সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যাতে দেখা যাচ্ছে বিরাট সংখ্যায় লোকজন জড়ো হয়ে একটা পুজো মন্ডপ ভাঙচুর করছে। দাবি করা হচ্ছে এটা পশ্চিমবঙ্গের পুজো মন্ডপ।

ফেসবুকে ভিডিওটি শেয়ার করার সময় হিন্দিতে যে ক্যাপশন দেওয়া হচ্ছে অনুবাদে তা দাঁড়ায়:‌ “শান্তির বার্তাবহরা গতকাল পশ্চিমবঙ্গে পুজোর মন্ডপ ধ্বংস করেছে। এই শুয়োরের বাচ্ছাদের এত বাড়িয়েছে উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টি আর বাংলায় মমতা ব্যানার্জি। হিন্দুরা কখনওই মুলায়ম সিং যাদব আর মমতা ব্যানার্জিকে ক্ষমা করবে না।”

(Original Text: कल बंगाल में दुर्गा पूजा के पंडाल को तहस नहस करते शांति दूत । इन सूगरों की औलादों को समाजबादी पार्टी उत्तरप्रदेश में औऱ ममता बनर्जी बंगाल में इतना बढ़ावा दे दिए है ही ये आलम है । मुलायम सिंह यादव और ममताबनर्जी को हिन्दू कभी भी माफ नहीं करेगा ।)

এই পোস্টের লিঙ্ক দেখুন এখানে (‌ post  )‌। আরও এমন পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে (‌ here and here   )‌।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল এর ফ্যাক্ট চেক করে দেখেছে যে এই দাবি অসত্য।

আমরা এই ভিডিওর কিফ্রেমগুলো বার করে নিয়ে তার রিভার্স ইমেজ সার্চ করে পৌঁছই ফেসবুকের (  Facebook  )অনেক পোস্টে যেখানে এই ভাইরাল ভিডিওটি আছে। সেখানে বলা আছে ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশে। ক্যাপশনে বলা হয়েছে, “নোয়াখালীতে ভয়াবহ অবস্থা। ত্রিশূল, মঙ্গলা, নবদূর্গা, বিজয়া প্যান্ডেল, কোটবাড়ি মন্দির সম্পূর্ণ আগুনে জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। হিন্দুদের বাড়ি বাড়ি ঢুকে আক্রমণ করা হচ্ছে, ভাংচুর অগ্নিসংযোগ করা হচ্ছে। একের পর এক মন্দির জ্বালিয়ে দেয়া হচ্ছে।”

‌‌‌<iframe data-src=”https://www.facebook.com/plugins/video.php?href=https%3A%2F%2Fwww.facebook.com%2FVedaTheInfallibleWordofGod%2Fvideos%2F966099357309495%2F&show_text=0&width=380″ width=”380″ height=”476″ style=”border:none;overflow:hidden” scrolling=”no” frameborder=”0″ allowfullscreen=”true” allow=”autoplay; clipboard-write; encrypted-media; picture-in-picture; web-share” allowFullScreen=”true”></iframe>

আরও সন্ধান করে আমরা দেখতে পাই এই ভিডিওটি বাংলাদেশ হিন্দু ইউনিটি কাউন্সিল–এর অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে  আছে ‘‌ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি’‌ বলে ক্যাপশন দিয়ে। দাবি করা হয়েছে ভিডিওটি বাংলাদেশের নোয়াখালি জেলার।

History repeats 😥 https://t.co/8xS4jLVqmK

— Bangladesh Hindu Unity Council (@UnityCouncilBD) October 15, 2021

আমরা অনেক সংবাদ নিবন্ধ (‌ articles )‌ দেখতে পাই যেখানে এই ঘটনাটির বিবরণ দিয়ে বলা হয়েছে বাংলাদেশে ইসকন মন্দিরের সামনের মন্ডপটি তছনছ করা হয়েছে। আমরা ইসকন মন্দিরের সহ–সভাপতি ও মুখপাত্রের একটি টুইট (‌  Twitter )   যাতে তিনি বলেছেন, “আজ কিছু ঘন্টা আগে ৫০০–র মতো মুসলিম নোয়াখালিতে ইসকনের মন্দিরে বায়রে জড়ো হন এবং ইসকন মন্দিরের ভেতরে প্রতিমা ভেঙে দিয়ে মন্দিরে আগুন লাগিয়ে দেন। তারা ইসকন মন্দিরের সামনের দেবী দুর্গার মৃর্তিটি ভেঙে দেয়। আমাদের ভক্তরা লড়াই করেছিল:‌ অনেকে গুরুতর আহত।”


আমরা দেখতে পাই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও একটি বিবৃতি (‌ statement    )‌ দিয়ে বলেছেন যারা “এই কাজ করেছে তাদের খুঁজে বার করা হবেই এবং শাস্তি দেওয়া হবে।”

কাজেই এই সব তথ্য থেকে স্পষ্ট বাংলাদেশের একটি ভিডিও অসত্যভাবে পশ্চিমবঙ্গে দুর্গাপুজোর মন্ডপ ভাঙচুরের ছবি বলে দাবি করা হচ্ছে। কাজেই ভাইরাল দাবি অসত্য।