Fact Check: সৌদি আরবের এই যোগ প্রশিক্ষিকা পদ্ম পুরস্কার পেয়েছেন ২০১৮ সালে, সম্প্রতি নয়

0 405

ভারতে সর্বোচ্চ অসামরিক অ্যাওয়ার্ডগুলির একটি হল পদ্ম পুরস্কার (‌ Padma awards   )‌, যা সম্প্রতি ৮ ও ৯ নভেম্বর দেওয়া হয়েছে চারটি পৃথক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ১১৯ জনকে। রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ পুরস্কার তুলে দেন শাটলার পি ভি সিন্ধু, ফুটবলার ওইনাম বেমবেম দেবী, গায়ক পন্ডিত চান্নুলাল মিশ্র ও সাংবাদিক লালবিয়াকথাঙ্গা পাচুআউ সহ অন্যদের হাতে।

একটি ছবি শেয়ার করে সামাজিক মাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে সৌদি আরবের এক যোগ প্রশিক্ষিকা নাউফ আলমারওয়াই এই বছরেই পদ্ম পুরস্কার পেয়েছেন, কিন্তু ইসলামি মৌলবাদীদের ভয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সে খবর প্রকাশ করেনি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ তাঁর হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন।

ফেসবুকে শেয়ার করার সময় লেখা হচ্ছে, “অনুমান করুন কে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দের থেকে পদ্মশ্রী নিচ্ছেন?‌ ইনি সৌদি আরবের নাউফ আল–মারওয়াই। কোনও রোগ–প্রতিরোধক শক্তি ছাড়াই জন্ম নেওয়ার কারণে চিকিৎসকেরা তাঁর আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। তারপর ভারতে এসে তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন এবং এখন সৌদি আরবের প্রথম যোগ প্রশিক্ষক। কিন্তু ভারতীয় সংবাদমাধ্যম তা দেখায়নি। নাউফ এখন সৌদি আরবে যোগ শেখান। ভারতের প্রাচীন সম্পদ যোগ ও আয়ুর্বেদ নিয়ে অনেকের অ্যালার্জি থাকতে পারে, কিন্তু তিনি বলছেন সৌদি আরবের নতুন প্রজন্মের ৬০ শতাংশ যোগ ও সূর্যনমস্কার করেন।”

এই পোস্টটি (‌  post )‌ দেখুন এখানে।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল এর ফ্যাক্ট চেক করে দেখেছে যে এই দাবি বিভ্রান্তিকর।

আমরা কিওয়র্ড সার্চ চালিয়ে আমরা দেখতে পাই নাউফ আল–মারওয়াই ২০১৮–এর মার্চ মাসে পদ্মশ্রী পুরস্কার পেয়েছিলেন। ভাইরাল ছবিটি রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দের টুইটার (‌ Twitter )‌ হ্যান্ডল থেকে টুইট করা হয়েছিল।

আমরা তাঁর নাম পেয়েছি ২০১৮ সালের পদ্ম পুরস্কারপ্রাপ্তদের (‌ Padma Awards 2018   )‌ তালিকাতেও। যোগের ক্ষেত্রে অসাধারণ কাজের জন্য তাঁকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।

আরও সন্ধান করে আমরা ২০১৮ সালের অনেকগুলি খবর (‌ news articles )‌ দেখতে পাই যাতে বলা ছিল নাউফ আলমারওয়াই ২০ বছর লড়াই করার পর সৌদি আরবের প্রথম যোগ প্রশিক্ষক হিসাবে স্বীকৃতি পান। খবরে বলা ছিল ২০১৮ সালে তিনি পদ্মশ্রী পান (‌ received )‌ যোগের জন্য তাঁর প্রয়াস ও লড়াইয়ের কারণে।

আরেকটি সংবাদ নিবন্ধে (‌  news article   )‌ বলা ছিল, “মারওয়াই একজন উদ্যোগপতি যিনি প্রায় ১১ বছর পর্যায়ক্রমে ভারত ও সৌদি আরব দুই জায়গাতেই থেকেছেন, এবং দু’‌দেশেই তাঁর ব্যবসা আছে। তিনি আরব যোগ ফাউন্ডেশনেরও সদস্য। স্বাস্থ্য হল একটা বড় কারণ যার জন্য তিনি যোগের দুনিয়ায় প্রবেশ করেছিলেন। জন্ম থেকেই তিনি নানা অসুখে ভুগতেন এবং ১৭ বছর বয়সের আগে তার কারণও বোঝা যায়নি। তারপর ধরা পড়ে তিনি আনডিফারেনশিয়েটেড কানেকটিভ টিস্যু ডিজিস এবং সম্ভবত রিউম্যাটিক ডিজিজে ভুগছিলেন।”

কাজেই ওপরের তথ্য থেকে এটা স্পষ্ট যে নাউফ আলমারওয়াই পদ্মশ্রী পেয়েছিলেন ২০১৮ সালে, এবং সেই খবরটাই এখন সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করা হচ্ছে।