Fact Check: ভারত কমনওয়েলথ গেমস ২০২২–এর পদক তালিকায় শীর্ষে নেই; ভাইরাল পোস্ট মিথ্যা

0 320

২৮ জুলাই থেকে ৮ অগাস্ট, ২০২২ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে কমনওয়েলথ গেমস ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়৷ ইভেন্টটিতে ৭২টি কমনওয়েলথ দেশ অংশগ্রহণ করে৷ ভারতের তরফে ১৬টি বিভিন্ন খেলায় ২০০ জনেরও বেশি ক্রীড়াবিদ অংশগ্রহণ করেন, এবং ভারত সামগ্রিক পদক তালিকায় শীর্ষস্থানীয় দেশগুলির মধ্যে একটি হিসাবে উঠে এসেছে।

এই পটভূমিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে একটি ভাইরাল চিত্র, যাতে দাবি করা হয়েছে যে ভারতীয়রা তাদের সিডবলুজি ২০২২–এর  যাত্রাশেষে পদক তালিকায় শীর্ষ স্থান পেয়েছে, ১০টি স্বর্ণ সহ মোট ২৪টি পদক জিতেছে, এবং স্বর্ণ পদকের ৬টি জিতেছেন হিমা দাস।

একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী এই ক্যাপশন সহ ভাইরাল ছবিটি পোস্ট ( posted )  করেছেন: विश्व इतिहास में पहली बार भारत प्रथम स्थान पर 10 में से 6 गोल्ड मैडल हिमा दास ने जीते हैं। बधाई हो (অনুবাদ: বিশ্বের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ভারত প্রথম স্থানে রয়েছে। হিমা দাস ১০টি সোনার মধ্যে ৬টি জিতেছেন। অভিনন্দন!)

আপনি এখানে (‌ here )‌ পোস্ট দেখতে পারেন।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল ভাইরাল পোস্টটির সত্যতা যাচাই করেছে এবং এটি মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে।

ভাইরাল ছবিতে পদক সংখ্যার দিকে ভালভাবে তাকালে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে ভারতের পরে রয়েছে ১৫টি দেশ৷ একটি গুগল কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে আমরা কমনওয়েলথ গেমসে অংশগ্রহণকারী দেশগুলিকে খুঁজে পেয়েছি৷ আমাদের অনুসন্ধান আমাদের ইভেন্টের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (‌ official website )‌ নিয়ে যায়। ‘নেশনস’ (‌‘NATIONS’ )‌ বিভাগের অধীনে ব্যবহারকারীরা ইভেন্টে অংশগ্রহণকারী সমস্ত দেশ খুঁজে পেতে পারেন। ভারত, অস্ট্রেলিয়া এবং সাইপ্রাস ছাড়া কোনও দেশই ওয়েবসাইটে উপস্থিত নেই।

অলিম্পিকের (‌ Olympics )‌ অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত অন্য একটি নিবন্ধ, কমনওয়েলথ গেমসে দেশ এবং অঞ্চল: ফুল লিস্ট (‌ Countries and territories at the Commonwealth Games: Full list )‌–এ বলা হয়েছে যে শুধু কমনওয়েলথ দেশগুলি (প্রধানত, ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের প্রাক্তন উপনিবেশ বা তার উপর নির্ভরশীল) এবং তাদের অঞ্চলগুলি কমনওয়েলথ গেমসে অংশগ্রহণের যোগ্য।

আমরা হিন্দুস্তান টাইমসের একটি টুইটও (‌ tweet )‌ পেয়েছি, যা ইভেন্টের শেষে চূড়ান্ত পদক তালিকা প্রদর্শন করে। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং কানাডার পেছনে ভারত মোট ৬১টি পদক (২২টি স্বর্ণ) নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। অন্যদের সঙ্গে এএনআই, ইন্ডিয়া টুডে এবং দ্য ইকনমিক টাইমস (‌ ANIIndia Today, and The Economic Times )‌ একই রিপোর্ট করেছে।

ভারত ১০টি স্বর্ণ পদক নিয়ে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে এমন খবর কোথাও পাওয়া যায়নি।

সিডবলুজি ২০২২-এর বিভিন্ন প্রতিবেদন অনুসারে, হিমা দাস ২০০ মিটার দৌড়ের চূড়ান্ত পর্বে ওঠার যোগ্যতা অর্জন করতে ব্যর্থ (‌ failed to qualify )‌ হন। এই স্প্রিন্টার সেমিফাইনালে ০.০১ সেকেন্ডের জন্য ফাইনালে পৌঁছনোর জায়গা তৈরি করতে পারেননি (‌ cost her a berth in the finals )‌।

তাঁর দ্বিতীয় দৌড়ে (৪X১০০মি রিলে) ভারত পঞ্চম স্থান অর্জন করেছিল (‌ India finished 5th position )‌, যার ফলে দাস পুরো ইভেন্টে কোনও পদক পাননি।

অতএব, আমরা চূড়ান্তভাবে বলতে পারি যে ভাইরাল ছবিটিতে যে দাবি করা হয়েছে, অর্থাৎ কমনওয়েলথ গেমস ২০২২-এ পদক তালিকায় ভারত প্রথম স্থান অর্জন করেছে এবং হিমা দাস দেশের জন্য ১০টির মধ্যে ৬টি স্বর্ণপদক জিতেছেন, তা মিথ্যা।