Fact Check: এই ভাইরাল ছবিতে কি আং সান সু কি–কে বিচারের সময় অজ্ঞান হয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে?‌ সত্য এখানে

0 193

মায়ানমারের গণতান্ত্রিক নেত্রী অং সান সু চি–কে ২০২১–এর ৬ ডিসেম্বর উস্কানি দেওয়া ও কোভিড–১৯ নিয়ম লঙ্ঘনের অপরাধে কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছিল বলে বিবিসি–র ( BBC) একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

উপরোক্ত প্রেক্ষাপটে সোশ্যাল মিডিয়ায় আং সান সু চি–র একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে, যাতে দাবি করা হয়েছে যে তিনি আদালতের বিচার চলাকালীন অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন।

এই ইমেজটি এই ক্যাপশাল–সহ শেয়ার করা হচ্ছে, “မတရားတဲ့ တရားခွင်မှာ အမေ အားပြတ်၊မူးဝေနေလို့ ခုံပေါ်မှောက် လိုက်တဲ့ ဓါတ်ပုံ ကမ္ဘာအနှံ့ ပြန့်ခဲ့ သလို မြင်ရသူအပေါင်း ကြေကွဲ ဝမ်းနည်းခဲ့ကြပါတယ်။ အခု တရုတ်ပန်ချီဆရာ ရေးဆွဲ ဂုဏ်ပြု့လိုက်တာ။ ပန်းချီကား နာမည် (ဦးဆွေးဆံမြေ့)”

(গুগ্‌ল–এর সাহায্যে বাংলা অনুবাদ: অন্যায্য, আদালতের বেঞ্চে শুয়ে থাকা মায়ের ছবিগুলো দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে সারা বিশ্বে, আর দর্শকদের মন খারাপ করে। মা, চিন্তা করবেন না। আমাদের মায়ের পাশে, আমাদের সঙ্গে সমস্ত মানু্ষ আছেন। আমরা সবাই জানি কে ঠিক আর কে ভুল। তাদের অন্যায়ের মাশুল যথাসময়ে দিতে হবে। সত্য এক মুহুর্তের জন্যও হারিয়ে যায় না। আমাদের জনগণ এখন ঐক্যবদ্ধ হয়েছে গণতন্ত্রের পথে যে আমি তোমাদের মা হতে চাই। তোমরা এই মায়ের স্বাস্থ্যের যত্ন নিও।‌ দুষ্টদের জন্য সূর্য অস্ত যাচ্ছে।)‌

পোস্টের লিঙ্ক এখানে ( here ) দেখা যাবে।

Fact Check
নিউজমোবাইল একটি ফ্যাক্ট-চেক করেছে এবং দাবিটি ভুয়ো বলে প্রমাণ করেছে।

আমরা কিওয়ার্ড দিয়ে অনুসন্ধান করে আদালতের কার্যক্রম চলাকালীন অং সান সু চি (‌ Aung San Suu Kyi  )‌ অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার খবর সম্বলিত কোনও মিডিয়া রিপোর্ট খুঁজে পাইনি।

এরপর গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করে আমরা দেখতে পেলাম যে একই ছবি ১৪ জুন, ২০১২ তারিখে ডেজার্ট.কম (‌ Desert.com )‌ নামে একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছিল। ছবির ক্যাপশনে লেখা ছিল, “এই ছবিটি এপি টেলিভিশন নিউজ মিয়ানমারের বিরোধী দলীয় নেতার কাছ থেকে নিয়েছে। অং সান সু চি, বৃহস্পতিবার, জুন ১৪, ২০১২ তারিখে সুইজারল্যান্ডের বার্নে একটি সংবাদ সম্মেলনে অসুস্থ হওয়ার আগে নিজের মুখে হাত রেখেছিলেন৷ সু চি বলেছেন যে তিনি এশিয়া থেকে ইউরোপে তাঁর দীর্ঘ সফরের পরে ক্লান্ত বোধ করছিলেন৷ সুইস পররাষ্ট্র মন্ত্রকের এক মুখপাত্র বলেছেন, সু চি পরে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু তারপর তিনি তাঁর কক্ষে চলে যান। ১৯৬৬ সালের পর এটিই সু চি–র প্রথম ইউরোপ সফর।

‌আমরা এই ঘটনার একটি ভিডিও পেয়েছি যেটি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ১৫ জুন, ২০১২ তারিখে আপলোড করেছিল। ভিডিওটির বর্ণনায় লেখা ছিল, “মিয়ানমারের বিরোধী দলীয় নেত্রী অং সান সু চি বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ডে একটি সংবাদ সম্মেলনের সময় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। ২৪ বছর পরে এশিয়া থেকে ইউরোপে দীর্ঘ ভ্রমণের পরে তিনি কতটা ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন সে কথা বলার কিছুক্ষণ পরেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। (১৪ জুন)।

সুতরাং, এটি স্পষ্ট যে একটি সংবাদ সম্মেলনের সময় সু চি‌–র অসুস্থ হয়ে পড়ার একটি পুরনো ছবি ভুয়ো দাবি–সহ ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হচ্ছে এই বলে যে তিনি আদালতে বিচারের সময় অজ্ঞান হয়েছিলেন।