Fact Check: পুরনো ছবিকে ভূপেন্দ্র পটেলের গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সঙ্গে যুক্ত করে বিভ্রান্তিকর দাবি–সহ শেয়ার করা হচ্ছে।

0 151

ভূপেন্দ্র পটেল (‌ Bhupendra Patel )‌ গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বিজয় রুপানি ২০২১–এর ১১ সেপ্টেম্বর পদত্যাগ (‌ resignation )‌ করার পর। এই অবস্থায় পুলিশের কিছু লোককে মারধর করার একটি ছবি এই দাবি–সহ ভাইরাল হয়েছে যে ভূপেন্দ্র পটেল গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর পুলিশ দুষ্কৃতিদের ধরতে সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

ফেসবুকে ছবিটি শেয়ার করার সময় ক্যাপশন দেওয়া হচ্ছে, “ভূপেন্দ্র পটেল গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সঙ্গেসঙ্গেই ফল পাওয়া যাচ্ছে। ভাবনগরে পুলিশ এক বড় ডনকে গ্রেপ্তার করে প্রকাশ্যে রাস্তায় পিটিয়েছে।”

(মূল টেক্স্ট: गुजरात के नए मुख्यमंत्री भूपेन्द्र पटेल बनते ही, उनका रूजान आना शुरू हो गया है. भावनगर में पुलिस ने वहां के एक बड़े डॉन को गिरफ्तार करके बीच चौराहे पर पिटा)

এখানে ওপরের পোস্টের ( post ) লিঙ্ক দেওয়া হল। এমন আরও ছবি দেখুন (‌ here )‌।

FACT CHECK
নিউজমোবাইল এর সত্যতা যাচাই করে দেখেছে দাবিটি মিথ্যা। ‌

ভাইরাল ইমেজে আমরা “মেট্রো ইন্ডিয়া নিউজ” লোগো দেখতে পাই। তার সঙ্গে ভাষ্যে লেখা ছিল, “ভাবনগরের কুখ্যাত ডনকে পুলিস ভাল করে ধুয়েছে।” (মূল টেক্স্ট: भावनगर के कुख्यात डॉन को पुलिस ने खूब धोया)

এই সূত্রে কিওয়র্ড সার্চ করে আমরা ‘‌মেট্রো ইন্ডিয়া নিউজ’‌–এর ২০১৮–র ৮ সেপ্টেম্বর আপলোড করা একটি ভিডিও ইউটিউবে ( YouTube ) দেখতে পাই যার বর্ণনায় বলা ছিল, “পুলিশ ডান্ডা মারে না কেন?‌ দেখুন কীভাবে গুজরাত পুলিশ মাঝরাস্তায় অপরাধীদের ধুয়ে দিচ্ছে।” এই ভিডিওর ২৯তম সেকেন্ডে ভাইরাল হওয়া দৃশ্য দেখা যাচ্ছে।

আরও সন্ধান করে আমরা দেখি গুজরাতি খবরের অনেক ওয়েবসাইটেও ২০১৮ সেপ্টেম্বরে ভিডিওটি (‌ video )‌ আপলোড করা আছে। সেগুলোতে বলা আছে, “অবশ্যই দেখুন সাহসী পুলিশ ইন্সপেক্টর মিশ্র কীভাবে ভাবনগরের ডন হয়ে ওঠা লোকেদের ধরছেন।” এরকম ভিডিও এখানে দেখুন (‌ here )‌। এতে বলা আছে, “ভাবনগর পুলিশ শৈলেশ ধান্ধানিয়ার মিছিল বার করছে।”

কিওয়র্ড সার্চ করে পাওয়া সংবাদ নিবন্ধে (‌ news articles )‌ দেখা যায় ২০১৮–র সেপ্টেম্বরে এ খবর অনেক জায়গায় বেরিয়েছিল। সেগুলোতে বলা ছিল “আমেদাবাদ পুলিশ শৈলেশ ধান্ধানিয়া (‌৩৯), তার সহযোগী মুকেশ শিয়াল (‌৩৮)‌ ও ড্রাইভার ভদ্রেশ গোস্বামী ওরফে ভুরো (‌৩৪)‌–কে গ্রেপ্তার করছে আমেদাবাদের এসপি রিং রোড থেকে। এরা ১৭ আগস্ট জমি বিবাদে তেজালার ইয়াকুবভাই নি এলাকার বাসিন্দা যোগেশ পারমার (‌২৭)‌–এর ওপর গুলি চানালোর দায়ে অভিযুক্ত।

কাজেই এটা স্পষ্ট যে একটি পুরনো ভিডিওর স্ক্রিনশট নিয়ে তা অসত্যভাবে শেয়ার করা হচ্ছে ভূপেন্দ্র পটেল গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পুলিশের সক্রিয়তা হিসেবে।