FACT CHECK: যুক্তরাজ্যের একটি সুপারমার্কেটে আগুনের ভিডিও মিথ্যাভাবে সাম্প্রদায়িক মোচড় দিয়ে শেয়ার করা হয়েছে

0 11

দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষের পরে একটি ভবনে আগুন জ্বলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হচ্ছে, এবং দাবি করা হচ্ছে যে নবরাত্রির সময় যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে একটি হিন্দু মন্দির মুসলমানরা পুড়িয়ে দিয়েছে।

ভিডিওটি ফেসবুকে এই ক্যাপশন–সহ শেয়ার করা হচ্ছে, “নবরাত্রির সময় মুসলমানরা বার্মিংহাম মন্দির পুড়িয়ে দিয়েছে। হিন্দুদের মারধর করেছে। ইংল্যান্ডের পুলিশ হিন্দুদের বাঁচাতে অকার্যকর।”

এখানে উপরের পোস্টের (‌ post )‌ লিঙ্ক দেওয়া হল।

FACT CHECK

নিউজমোবাইল উপরোক্ত দাবির সত্যতা যাচাই করেছে এবং এটি বিভ্রান্তিকর বলে প্রমাণিত হয়েছে।

ভিডিওটি ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করার পর আমরা দুটি বোর্ড দেখতে পেয়েছি যেখানে লেখা “সুপারমার্কেট” এবং “এসএম ভ্যাপস” (‌ “SM Vapes”  )‌। আমরা তখন গুগল ম্যাপে এটি অনুসন্ধান করেছি এবং বার্মিংহামে একই দোকান খুঁজে পেয়েছি।

আমরা “জিনাত সুপারমার্কেট বার্মিংহাম ফায়ার” শব্দটি ব্যবহার করে একটি কিওয়ার্ড সার্চ করেছি, এবং ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২–এর ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন  বা বিবিসি–র (‌ BBC ) একটি রিপোর্ট পেয়েছি। রিপোর্ট অনুসারে, ১৯ সেপ্টেম্বর একটি দোকানে আগুন লেগেছিল এবং ১২টি ফায়ার টেন্ডার পাঠানো হয়েছিল অ্যালাম রক রোডে।

আরও অনুসন্ধান করে, আমরা ২০ সেপ্টেম্বর ডেইলি মেইলের  ( Daily Mail’ )‌ ওয়েবসাইটে আপলোড করা একই ভিজ্যুয়াল পেয়েছি।

কাহিনী অনুসারে, দমকলকর্মীরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করলে লড়াই শুরু হয়। ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস ফায়ার সার্ভিসের (‌  West Midlands Fire Service )‌ মতে তদন্তকারীরা “সন্তুষ্ট যে আগুনের সূত্রপাত হয় অসাবধানতাবশত”।

ভাইরাল ভিডিওটি বহনকারী এখন মুছে–ফেলা টুইট (‌ tweet )‌ সম্পর্কে ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশ আরও স্পষ্ট করেছে যে “ভিডিওটি ১৯ সেপ্টেম্বর বার্মিংহামের একটি সুপারমার্কেটে আগুন লাগার দৃশ্য দেখায়,যা দুর্ঘটনাক্রমে ঘটেছিল যখন একটি আবর্জনার আগুন ভবনে ছড়িয়ে পড়েছিল।”

পুলিশ আরও জোর দিয়েছিল যে ঝগড়াটি একটি একক ঘটনা এবং এটি একটি নির্দিষ্ট গাড়ির পার্কিংয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত।

সুতরাং, উপরের তথ্য থেকে স্পষ্ট যে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে নবরাত্রির সময় মুসলমানদের অগ্নিসংযোগ করা একটি হিন্দু মন্দির হিসাবে একটি সম্পর্কহীন ভিডিও মিথ্যাভাবে শেয়ার করা হচ্ছে।