Fact Check: উত্তরাখণ্ডে চিতাবাঘের আক্রমণের পোস্ট কাল্পনিকভাবে অন্ধ্রপ্রদেশের সাথে যুক্ত করা হয়েছে

0 404

সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে প্রচারিত হচ্ছে একটি ভিডিও, যেখানে দেখানো হয়েছে একটি বাঘ পালিয়ে যাওয়ার আগে এক পাহাড়ে দু’‌জনকে আক্রমণ করছে। অনেক ব্যবহারকারী ভিডিওটি শেয়ার করে দাবি করেছেন যে বাঘ অন্ধ্রপ্রদেশের পালনাডু জেলায় দুই মহিলাকে আক্রমণ করেছে।

একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী একটি ক্যাপশন সহ ভাইরাল পোস্টটি পোস্ট (‌ posted )‌ করেছেন: పల్నాడుజిల్లా బొల్లాపల్లి మండలంలో ఇద్దరు మహిళపై దాడి చేసిన పులి ఏ ఊరు బాధితులకుగాయాలయ్యాయ్యా వాళ్ళ పరిస్తితి ఎలా ఉంది. అనే  పూర్తి వివరాలు తెలియాల్సి ఉంది…. (অনুবাদ: পালনাডু জেলার বোল্লাপল্লী মন্ডলে বাঘ দুই মহিলাকে আক্রমণ করেছে। কোন গ্রামের মানুষ আহত হয়েছেম?‌ তাঁদের অবস্থা কেমন? এর সম্পূর্ণ বিবরণ জানতে হবে….)

এখানে উপরের পোস্টটি (‌ here )‌ দেখতে পাবেন।

FACT CHECK

নিউজমোবাইল ভাইরাল পোস্টটির সত্যতা যাচাই করেছে এবং এটি মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে।

ভিডিও কিফ্রেমগুলির একটি রিভার্সইমেজ সার্চ করে আমরা একটি সংবাদ নিবন্ধ শনাক্ত করেছি, যার শিরোনাম: गुलदार ने घात लगाकर महिलाओं पर किया हमला, VIDEO में देंखे मां को बेटे ने कैसे बचाया

নিবন্ধের চিত্রটি ভাইরাল ক্লিপের একটি কিফ্রেমের সাথে হুবহু মিলে যায় এবং প্রতিবেদনটি জানায় যে উত্তরাখণ্ডের আলমোড়া জেলার দ্বারাহাট শহরের কাছে একটি গ্রামে ২ জন মহিলার উপর চিতাবাঘের আক্রমণ হয়েছে৷

আমরা লাইভ হিন্দুস্তানের অফিসিয়াল হ্যান্ডেলে একটি এমবেডেড টুইটও (‌ tweet  )‌ পেয়েছি, যেখানে পুরো ঘটনার ভিডিও দেখানো হয়েছে। টুইটের ভিডিওটি ভাইরাল ক্লিপের সাথে হুবহু মিলে যায়, এবং এটি নিশ্চিত করে যে ঘটনাটি অন্ধ্র প্রদেশ নয়, উত্তরাখন্ডে ঘটেছে।

এছাড়াও, একই দিনে Scroll.in (‌ Scroll.in )‌-এর অন্য একটি প্রতিবেদনে লাইভ হিন্দুস্তান থেকে একই টুইট করা হয়েছে, যাতে দেখা যাচ্ছে ভিডিওটি উত্তরাখণ্ডের দ্বারাহাটের।

অতএব, আমরা চূড়ান্তভাবে বলতে পারি যে অন্ধ্রপ্রদেশের পালনাডু জেলায় একটি বাঘ দুই মহিলাকে আক্রমণ করেছে বলে দাবি করা ভাইরাল পোস্টটি ভুয়ো।