Fact Check: ২০২১–এ গুজরাটে ব্যাপক বন্যার ভিডিওটি কাল্পনিকভাবে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের পরের সময়ের সাথে যুক্ত করা হয়েছ

0 442

সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হয়েছে একটি ভিডিও যা বিস্তৃত বন্যা এবং বেশ কয়েকটি ভবনের আংশিকভাবে কর্দমাক্ত জলে তলিয়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখায়। অনেক ব্যবহারকারী অভিযোগ করেছেন যে এটি গুজরাটের জামনগরে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের (‌ Cyclone Biparjoy )‌ পরেকার দৃশ্য প্রদর্শন করে।

ভিডিওটি ফেসবুকে এই ক্যাপশনে শেয়ার করা হয়েছে: ‌“घुडसिया गाँव…जामनगर.. गुजरात बिपरजोय तूफान”

এখানে উপরের পোস্টের (‌ post )‌  লিঙ্ক পাবেন।

FACT CHECK

নিউজমোবাইল উপরোক্ত দাবিটির সত্য-নিরীক্ষা করেছে এবং এটি মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে।

একটি রিভার্স ইমেজ সার্চ সম্পাদন করে আমরা ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১–এ একই ভাইরাল ভিডিও বহনকারী একটি ফেসবুক পেজ (‌ Facebook page )‌ পেয়েছি একটি গুজরাটি ক্যাপশন সহ, যা বাংলা অনুবাদে এ রকম দাঁড়ায়: “জামনগর জেলায় মেঘের তান্ডব, জামনগর জেলার উমরালগাম সর্বত্র বন্যা। মানুষ প্রাণ বাঁচাতে আগাসিতে ওঠে। এর স্পষ্ট অর্থ হল ভিডিওটি ২০২১ সালের এবং সাম্প্রতিক হতে পারে না।

আমরা ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ তারিখের একটি ইউটিউব (  Youtube ) ভিডিও পেয়েছি, যেখানে ভাইরাল ভিডিওটি রয়েছে। ভিডিওর ক্যাপশনে লেখা হয়েছে: “গত রাত থেকে বৃষ্টির কারণে আজ জামনগরের আলিয়াবদা, জাম্বুদা, বলচাদি, মতি বানুগার, সাপদা, পাসায়া বেরজা মহকুমায় দুর্যোগের মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে, আর জামনগর জেলায় এখনও পর্যন্ত ২০–২৫ ইঞ্চি বৃষ্টি হয়েছে। যে সব বীজ বপন করা হয়েছে তা এখনও মাঠেই রয়েছে।”

বন্যা–সম্পর্কিত নিবন্ধগুলি খুঁজতে গিয়ে আমরা দ্য কুইন্ট, ইন্ডিয়া টুডে (‌ The Quint, India Today )‌ ও বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের (‌ Business Standard )‌ বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখেছি, যেখানে বলা হয়েছে যে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে গুজরাটে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে, যার জন্য জামনগর ও রাজকোট সহ বেশ কয়েকটি এলাকায় ব্যাপক বন্যা হয়েছে। এর ফলে অত্যধিক বৃষ্টিপাতের ফলে ব্যাপক জলমগ্নতা ও ক্ষয়ক্ষতি হয়।

সুতরাং, উপরের তথ্য থেকে এটি স্পষ্ট যে ভাইরাল ভিডিওটি বেশ পুরনো।